B.Ed: প্রাথমিকে চাকরি নিয়ে অবস্থান স্পষ্ট করলো কোর্ট! জানতে দেখুন

প্রাথমিক স্তরে চাকরি নিয়ে বড় ঘোষণা করলো সুপ্রিম কোর্ট! এই ডিগ্রী (B.Ed) প্রাপ্তরা আর করতে পারবেন না আবেদন। শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই আমাদের রাজ্যে চলছে নানা ধরনের আন্দোলন। এই আন্দোলনের রেশ ছড়িয়ে পড়েছে আদালতের দোরগোড়া পর্যন্ত। রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে নানা ধরনের প্রশ্ন উঠেছিল শিক্ষাক্ষেত্রে চাকরি করতে আগ্রহী প্রার্থীদের মধ্যে। তার মধ্যে অন্যতম একটি হলো বিএড ডিগ্রী প্রাপ্ত প্রার্থীরা প্রাথমিক শিক্ষা স্তরে চাকরির যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন কিনা। এবার এই বিষয়েই নিজের অবস্থান পরিষ্কার করে জানালো দেশের সর্বোচ্চ আদালত অর্থাৎ সুপ্রিম কোর্ট।

Big News for B.Ed in School Teaching

এই বিষয়ে চূড়ান্ত রায় দান করে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে বিএড ডিগ্রী প্রাপ্ত প্রার্থীরা প্রাথমিক শিক্ষা স্তরে চাকরি করার জন্য আবেদনের যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন না। তবে সুপ্রিম কোর্টের তরফ থেকে জানানো হয়েছে ২০২৩ সালের আগস্ট মাসের আগে যে সমস্ত প্রার্থী বিএড ডিগ্রি নিয়ে প্রাথমিক শিক্ষা স্তরে চাকরি পেয়েছিলেন তাদের চাকরি বৈধ। তবে নতুন করে বিএড ডিগ্রি নিয়ে আর প্রাথমিক শিক্ষা স্তরে চাকরি করার জন্য আবেদন জানাতে পারবেন না প্রার্থীরা।

দীর্ঘদিন ধরেই দেশের সর্বোচ্চ আদালতে বিএড এবং ডিএলএড ক্লারিফিকেশন সংক্রান্ত মামলা চলছে। আজ সেই মামলাতেই চূড়ান্ত রায় দান করেছে সুপ্রিম কোর্ট। আদালতে তরফ থেকে স্পষ্ট ভাবে জানানো হয়েছে ১১ই আগস্ট ২০২৩ সালের আগে যে সকল চাকরি প্রার্থীরা তাদের বিএড প্রশিক্ষণের যোগ্যতা নিয়ে প্রাথমিক স্তরের চাকরিতে নিযুক্ত হয়েছেন তাদের চাকরি বহাল থাকবে। এর আগে দেশের সর্বোচ্চ আদালতের তরফ থেকে ২০১৮ সালের NCT বিজ্ঞপ্তি খারিজ করে দেওয়া হয়েছিল। কারণ ওই বিজ্ঞপ্তিতে NCT-র তরফ থেকে জানানো হয়েছিল বিএড প্রশিক্ষণ প্রাপ্তরাও প্রাথমিক শিক্ষা স্তরে চাকরি করতে পারবেন তবে তাদের ৬ মাসের একটি ব্রিজ কোর্স থাকতে হবে।

তবে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি সঞ্জয় কিষাণ এবং বিচারপতি সুধাংশু ধুলিয়ার ডিভিশন বেঞ্চের রায়দানের পর এই বিজ্ঞপ্তি খারিজ হয়ে যায়। অভিযোগ ওঠে ডি এল এড প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরা এ ক্ষেত্রে চাকরি থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এই নিয়ে রাজ্যে একাধিক মামলা জারি হয়। আমাদের রাজ্যের পাশাপাশি দেশের অন্যান্য বিভিন্ন রাজ্যেও এই ইস্যুকে কেন্দ্র করে মামলা শুরু হয়। রাজস্থানের হাইকোর্ট ডিএলএড প্রার্থীদের পক্ষে রায় দেয়।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now

গরমের ছুটির পর কবে খুলবে স্কুল…

হিমাচল প্রদেশের হাইকোর্ট অবশ্যই এমন কোন রায় দেয়নি। তবে সুপ্রিম কোর্টে অবশেষে জয় মেলে ডিএলএড করা প্রার্থীদের। শীর্ষ আদালতের রায় অনুসারে এবার থেকে d.el.ed প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থীরাই প্রাথমিক শিক্ষা স্তরে চাকরির যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। বিএড প্রশিক্ষিতরা আর এই সুযোগ পাবেন না। বিএড প্রশিক্ষিতরা শুধুমাত্র উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা স্তরে পড়ানোর জন্যই আবেদন জানাতে পারবেন। এবং সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশ মানতে হবে সকল রাজ্যকেই।
Written by Joyeeta Mukherjee.

Post Disclaimers

'whatsupbengal.in' একটি বাংলা অনলাইন ব্লগ নিউজ পোর্টাল। এই নিবন্ধে এবং আমাদের সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে প্রদত্ত তথ্যগুলি বিশ্বাসযোগ্য, যাচাই করা এবং অন্যান্য বড় মিডিয়া হাউস থেকে নেওয়া হয়েছে তা নিশ্চিত করার জন্য আমরা সমস্ত ব্যবস্থা নিয়েছি। এই ওয়েবসাইটে দেওয়া বিষয়বস্তু শুধুমাত্র তথ্য ও শিক্ষামূলক উদ্দেশ্যে।
যোগাযোগ - wspbengal@gmail.com
নম্বর - 6297256750 (হোয়াটসঅ্যাপ)

আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

*ফেসবুক পেজ - Join Here
*হোয়াটস্যাপ চ্যানেল - Follow Us
*টেলিগ্রাম চ্যানেল - Join Here
*কু অ্যাপ - Like Us
*ট্যুইটার - Follow Us

হ্যালো প্রিয় পাঠকবৃন্দ, আমরা একটি দল হিসেবে কঠোর পরিশ্রম করছি আপনাদের জন্য শুধুমাত্র শিক্ষামূলক উদ্দেশ্যে বিশ্বাসযোগ্য এবং মূল্যবান কন্টেন্ট সরবরাহ করতে। আমরা শিক্ষা, সরকারি স্কিম, সরকারি কর্মচারী, প্রযুক্তি, টেলিকম, দৈনিক আপডেট, আর্থিক বিষয়, ব্যবসার ধারণা, বৃত্তি ইত্যাদি নিয়ে কাজ করছি। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে। প্রতিটি ব্লগ পোস্টের জন্য একটি মূল্যবান মন্তব্য করতে ভুলবেন না। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ। কোনো প্রয়োজনে আমাদের wspbengal@gmail.com ঠিকানায় লিখুন।

Leave a Comment

Home
জয়েন চ্যানেল
জয়েন গ্রুপ
ফলো পেজ
আপডেট
error: Content is protected !!
Madhyamik Exam – মাধ্যমিক নয়ে জরুরী নির্দেশিকা প্রকাশ পোস্ট অফিসে ডাবল রিটার্ন, এভাবে টাকা জমালেই পাবেন সুযোগ! স্কুল ছুটির ঘোষণা রাজ্যে! টানা ২ দিন বন্ধ থাকছে, দেখুন।